ফেসবুক অ্যাড, চমৎকার টিপস

শেয়ার করুন
Share on Facebook4Share on Google+0

“BOOST POST” থেকে অ্যাড না দিলে ভালো

“boost post” থেকে অ্যাড দিতে না করবো, কারন সেখানে আপনি অনেক কিছু বিস্তারিত পাবেন না, অ্যাড দেয়া মানে তো শুধু এই না যে টার্গেট বাজেট ঠিক করে অ্যাড দিয়ে দিলেন হয় গেলো, আপনার উচিত হবে পাওয়ার এডিটর টুলস এ গিয়ে “insight” থেকে অন্যদের পেজ দেখে এরপর অ্যাড দেয়া। অন্নদের পেজ মানে আপনার বিজনেস এর সাথে মিলে এমন সেখানে গিয়ে দেখেন তাদের পেজে কি ধরনের মানুষ আছে, কত বছরের মধ্যে আছে, ছেলে বেশি নাকি মেয়ে বেশি, তাদের ইন্টারেস্ট এর জায়গাগুলো কোথায় এরপর নিজের অ্যাড এর টার্গেট ঠিক করেন।

 

ঠিক সময়ে অ্যাড দেন, ইচ্ছামত সময়ে না

একটা কথা তো আছে যে সময় মত কাজ করা উচিত তাই না? ফেসবুক অ্যাড এর ক্ষেত্রে ও তাই, অবশ্যই সময় মত অ্যাড দিবেন, এখন কথা হচ্ছে ঠিক সময় কিভাবে বুঝবেন, এখানে ঠিক সময় আসবে আপনার ক্রেতা কারা তাদের উপর নির্ভর করে, তাই আগে জানুন আপনার ক্রেতা কারা, আপনার ক্রেতা যদি মহিলা হয় তাহলে মনে হয় না তাদেরকে রাত ১২ টার পর ফেসবুক এ পাওয়া যাবে আবার আপনার ক্রেতা যদি হয় ১৮-২৫ বছরের ছেলে তাদের দুপুরে পাওয়ার সম্ভাবনা কিন্তু অনেক কম থাকবে, আবার যারা চাকুরি করে তারা বৃহস্পতিবার রাতে একটু বেশি সময় ফেসবুক এ দিবে এটা ও ধরে নেয়া যায় এরকম আরো অনেক ব্যাপার আছে তাই চিন্তা করে সময় ঠিক করেন এরপর অ্যাড দেন। এখানে আপনি ২ থেকে ৩টা সময়ে অ্যাড চালিয়ে দেখতে পারেন, পরবর্তীতে যেটা ভালো কাজ করবে সেটা করলেন।

 

“DAILY BUDGET” না দিলে ভালো

অ্যাড সেট করার সময় দুইটা বিষয় থাকে বাজেট এর ওখানে একটা হচ্ছে “Daily budget” আর একটা হলো “life time budget”। আপনি যদি লাইফ টাইম বাজেট এ কাজ করেন ভালো হবে, এখানে সহজে ই ঠিক করে দেয়া যাবে আপনার বাজেট কর এবং আপনার অ্যাড কতদিন চলবে, লাইফ টাইম বাজেট মানে হচ্ছে আপনি প্রতিদিনের বাজেট ঠিক না করে একেবারে কতটাকার অ্যাড দিতে চান সেটা ঠিক করবেন। তারমানে এখানে ফেসবুক ঠিক করে দিবে আপনার অ্যাড এর খরচ কিভাবে হতে পারে আর ডেইলি বাজেটে আপনি সেই সুবিধাটা পাচ্ছেন না। আপনি যেহেতু ডেইলি বাজেট দিয়ে রেখেছেন ফেসবুক সে অনুযায়ী দিনের একটা সময়ে আপনার অ্যাড চালাবে।

 

ছবি তে লেখা দিবেন না অথবা একদম কম লেখা দিবেন

 

ফেসবুক অ্যাড এর ক্ষেত্রে ছবিতে যত কম লেখা ব্যবহার করা যায় তত ভালো, ফেসবুক এর একটা নিয়ম আছে আপনি ফেসবুক অ্যাড এ ২০% এর বেশি লেখা দিতে পারবেন না অথবা দিলে ও সেটা আপনার অ্যাড এর পারফর্মেন্স এর উপর প্রভাব ফেলবে।

https://www.facebook.com/ads/tools/text_overlay

নিচের লিঙ্ক টা অনেক উপকারি হতে পারে আপনার জন্য, ফেসবুক এ আপলোড করার আগে ডিজাইনটা চেক করে নেন যে ঠিক আছে কিনা। লেখা বেশি হলে ফেসবুক অনেক সময় অ্যাড বাতিল ও করে দেয়।

অ্যাড এর সাইজ 1200×628 Pixel রাখেন।

 

বুদ্ধিমত্তার সাথে টার্গেট করুন অ্যাড

অনেকে অ্যাড এ রিচড কত হলো সেটা নিয়ে অনেক বেশি চিন্তা করেন, মনে করেন রিচড বেশি মানেই সেল বেশি এটা কিন্তু ভুল, আপনি অ্যাড এ বাংলাদেশ এর সাথে অন্য একটা দেশ দিয়ে একটা চালিয়ে দেখতে পারেন রিচড কত বেশি হয় কিন্তু তাতে কি কোন লাভ হবে, আপনার দর্শক বাংলাদেশে অন্য দেশের দর্শকদের এনে আপনার রিচড হলো কিন্তু সেল কি হবে? তাই রিচড এর দিকে গুরুত্ব কম দিয়ে কোয়ালিটি টার্গেট করেন। আপনার ক্রেতা কারা, কিরকম বয়সের, কোন এলাকার মানুষ অনলাইনে এ এটা কিনতে পারে ইত্যাদি ইত্যাদি ব্যাপার। আর অ্যাড দেয়ার সময় আপনার পেজে ইতিমধ্যে যারা লাইক দিয়েছে তারা যেন অ্যাড দেখতে পারে সেই বাবস্থা করবেন কারন তারা অন্যদের থেকে আপনাকে হয়তো একটু ভালো করে চিনে কারন তারা আপনার পেজে লাইক দিয়েছে।

 

ফেসবুক এর নিয়ম ভঙ্গ করবেন না

আমরা যখন ফেসবুক এ কোন গ্রুপ বানাই তখন কত নিয়ম দেই তাই না, তাহলে ফেসবুক এর ও কিছু নিয়ম থাকবে সেটাই স্বাভাবিক। আর আমরা যেমন গ্রউপের কেউ নিয়ম না মানে তাকে গ্রুপ থেকে বের করে দেই ফেসবুক ও তাই করবে তাই না? তাই ফেসবুক এর নিয়ম মেনে অ্যাড দেন। আপনি হয়তো অবাক হবেন কেন আপনার অ্যাড একাউন্ট ব্যান হলো, এরকম তো হবার কথা না ইত্যাদি ইত্যাদি কিন্তু আপনি নিয়ম ভঙ্গ করলে ই কিন্তু ফেসবুক বাবস্থা নিবে, আর যদি ভুলে ফেসবুক কিছু করে সেটা আপনি তাদের জানাতে পারবেন তারা সেটা ঠিক করে দিবে। নিচের লিঙ্ক থেকে নিয়ম গুলা পড়ে নেন

https://www.facebook.com/policies/ads/

 

 

কন্টেন্ট এ অনেক কিছু লিখার দরকার নাই

কন্টেন্ট এ অনেক কিছু লেখার দরকার নাই। আমার কথা যদি বলি যে সব পোস্ট এর শেষে “Continue reading” থাকে আমি সেগুলি মূলত পরি না, এতো বড় কন্টেন্ট ফেসবুক এ পড়তে ইচ্ছা করে না, শুধু আমি না হয়তো অনেকেই এই কাজ করে তাই কন্টেন্ট ছোট করেন। “see more” এ যাওয়ার আগে শেষ করতে পারলে ভালো। সেটা না হলে ও অনেক বড় করবেন না।

 

 

আরিফুল ইসলাম

Facebook Comments

আমার নাম আরিফুল। গ্রাফিক ডিজাইন, ডিজিটাল মার্কেটিং, ব্র্যান্ডিং ইত্যাদি বিষয় নিয়ে কাজ করি। লিখতে অনেক ভালোবাসি। মুলত আইটি বিষয়ক বিভিন্ন লেখা লিখি থাকি।আমি এই ব্লগের এডমিন। আশা করি আপনাদের ভালো কিছু আর্টিকেল দিতে পারবো যা পড়ে আপনারা উপকৃত হবেন। এটার সাথে আমি ই ক্যাব এবং জেনেসিস ব্লগে ও লিখে থাকি।

শেয়ার করুন
Share on Facebook4Share on Google+0

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *