জাফর হোসাইন জাফি

অনেক মানুষ এখানে একজন আর একজন কে হেল্প করছে নিজে থেকেই-জাফর হোসাইন জাফি

অনেক মানুষ এখানে একজন আর একজন কে হেল্প করছে নিজে থেকেই-জাফর হোসাইন জাফি

“অনেক মানুষ এখানে একজন আর একজন কে হেল্প করছে নিজে থেকেই কারন তারা ও শিখেছে এখান থেকে ই, তাই আমি অনেক হ্যাপি, আজকের এই দিনটাই আসলে দেখতে চেয়েছিলাম। কেমন কাজ করছে দেখতে হলে গ্রুপগুলাতে একটু ঘুরতে হবে। – জাফর হোসাইন জাফি “

 

টেক প্রো টিউনস-  শুরুর গল্পটা জানতে চাই, ডিজিটাল মার্কেটিং এর শুরুর গল্প

জাফর হোসাইন জাফি-  আসলে অনলাইন বলুন আর অফলাইন বলুন প্রতিটি ক্ষেত্রেই যখন মার্কেটিং করার প্রয়োজন হয় ইলেক্ট্রনিক ডিভাইজের মাধ্যমে তখন সেটাই ডিজিটাল মার্কেটিং, আমি ঠিক বুঝতে ই পারি নি যে আমি কখন ডিজিটাল মার্কেটিং এর ভিতর চলে এসছি। ২০০৯ থেকে শুরু ইউটিউব এর মাধ্যমে। এখন আরনিং এর বিভিন্ন পথ বিভিন্ন পর্যায়ে আছে, কোথাও কোথাও ইনভেস্টমেন্ট আছে, কোথায় কোথায় কন্টেন্ট আছে।

 

 

টেক প্রো টিউনস – অনেকেই ফ্রিল্যান্সিং বলতে এখনো শুধু গ্রাফিক ডিজাইন ওয়েব ডিজাইন ডিজাইন এই পেশাগুলো মনে করে, ডিজিটাল মার্কেটিং নিয়ে কিছু বলবেন।

জাফর হোসাইন জাফি- হ্যাঁ আমরা ফ্রিল্যান্সিং বলতে আসলেই গ্রাফিক ডিজাইন এস ই ও ,ওয়েব ডেভেলপমেন্ট ইত্যাদি বুঝি, যে সাইটগুলাতে কাজ করা যেতো ২০০৬ থেকে সেই সাইটগুলা এই ধরনের পেশার উপরে ই ছিলো, আর যারা কাজ শুরু করেছিলো তারা এগুলি ছাড়া অন্য কিছু নিয়ে কাজ করে নি তাই মানুষ এটাইকে বুঝে।

আর আমরা কখনই নতুনকে গ্রহন করতে পারি না,  ফ্রিল্যান্সিং এর যে ১০০ এর উপরে উপার্জন করার রাস্তা আছে সেগুলিতে চেস্টা করা হয় নি, আর ট্রেইনাররা ও এগুলি ই শিখাচ্ছে তো সেদিক দিয়ে বলা যায় সমস্যাটা গোঁড়া থেকেই, আর একটা সমস্যা হচ্ছে নতুনদের, কারন তারা চায় না নতুন কিছু শিখতে। আর একজন কিভাবে সফল হয়েছে সেটার শর্ট কাট খুজতে থাকে আর এটা আমাদের একটা বড় সমস্যা।

 

 

টেক প্রো টিউনস – এখানে দুই ভাবে কাজ করা যায় এক হচ্ছে নিজের প্রোডাক্ট মার্কেটিং করা আর এক হচ্ছে অন্যদের জন্য ফ্রিল্যান্সিং করা, আপনি কোনটাকে গুরুত্ব দেন।

 জাফর হোসাইন জাফি- আমি অন্যদের জন্য কাজ করবো কেন? আমি চাইনি কখনো অথবা এখনো চাই না, দেখুন বাংলাদেশে যে দুটি গ্রুপ চালু আছে ইউটিউব এবং টি স্প্রিং, এখানে সাকসেস রেশিও আরনিং এর ক্ষেত্রে বাংলাদেশের যে কোন গ্রুপ থেকে সব থেকে ভালো, এমন কোন গ্রুপ নেই যে আরনিং এর দিক দিয়ে এই গ্রুপ কে চ্যালেঞ্জ করতে পারে, আজকেই এসেছে নতুন একটা ছেলে আজকে চাইলে সে ডলার ইনকাম করতে পারে এমন ও উদাহারন আছে আমার গ্রুপে এবং সেটা একদম ০ ইনভেস্টমেন্ট এ।

এরা তো ফ্রিল্যান্সিং করছে না তাই ওদিকে থেকে চিন্তা করলে আমি অবশ্যই অবশ্যই নিজের কন্টেন্ট মার্কেটিং করার উপর গুরুত্ব দিবো, আমরা জানি কন্টেন্ট হচ্ছে নতুন কারেন্সি আর ওই কন্টেন্ট এর উপর নির্ভর করে ই আমরা আরনিং করে যাচ্ছি। আমাদের ছেলেরা আরনিং করে যাচ্ছে, হাজার হাজার ছেলে।

 

 

টেক প্রো টিউনস – যারা ফ্রিল্যান্সিং করে, গ্রাফিক ডিজাইন, ওয়েব ডিজাইন ইত্যাদি তারা মুলত নির্ভরশীল মার্কেটপ্লেসগুলোর উপর, তারা কিভাবে পারবে ফেসবুক অথবা ইউটিউব এ মার্কেটিং করে ক্লাইন্ট নিয়ে আসতে।

  জাফর হোসাইন জাফি- তারা ফিল্যান্সিং এর উপর নির্ভরশীল এবং তারা নিজেদের ব্রান্ডিং করছে না এটা একটা বড় ভুল। তারা অবশ্যই মার্কেটপ্লেসের উপর নির্ভরশীল এখন তারা যদি আজকে তাদের প্রোফাইল বন্ধ করে দেয় কোন একটা দোষ ত্রুটির কারনে, সেটা কিন্তু তারা ফিরে পাচ্ছে না এবং নতুন করে আবার কাজ করতে হচ্ছে। এরকম হোচট অনেকেই খেয়েছে। কিন্তু তাদের যদি নিজের একটা ওয়েবসাইট থাকতো, ধরেন আপনার নাম আরিফুল ইসলাম, আপনার ওয়েবসাইট আরিফুল ইসলাম ডট কম, আপনার সকল কাজ সেখানে থাকবে,পোর্টফলিও হিসেবে থাকবে এটার উপর আপনি আপনার যে স্কিল আছে সেটা নিয়ে টিপস সম্পর্কিত ইউটিউব এ ভিডিও থাকলো এবং ভিডিওটা অবশ্যই ফেসবুক এ দিলেন, এরপর ফেসবুক এ অ্যাড চালান আপনার যে ক্লাইন্ট আছে তাদেরকে টার্গেট করে, ফেসবুক এ খুব সহজেই টারগেটিং করা যায়, আপনি জানেন যে আমি এই সবের উপর অনেক কন্টেন্ট বানিয়েছি কিভাবে টার্গেট করতে হয়, ওগুলি ফলো করলেই  খুব সহজেই ক্লাইন্ট পাওয়া যায় আর পারমানেন্ট একটা প্রোফাইল দাড়ায় যেখানে রিস্ক নেই।

 

 

টেক প্রো টিউনস – আপনি নিজে কাজ করার পাশাপাশি অন্যান্যদের ট্রেনিং দিচ্ছেন, অনুপ্রেরনা দিচ্ছেন বিভিন্ন ভাবে, কততুকু কাজ করছে আপনার এই পরিশ্রম

জাফর হোসাইন জাফি- আমি নিজে কাজ করার পাশাপাশি অনুপ্রেরনা দিচ্ছি, ট্রেনিং দিচ্ছি এখন সরাসরি ট্রেনিং দিতে হচ্ছে ও না, কারন আমি প্রথম দিকে যাদের ট্রেনিং দিয়েছি যারা অনেক বেশি সাকসেস পেয়েছে এখন তারাই ট্রেনিং দিচ্ছে, আজকের এই কমিউনিটিগুলো আমি ২৪ ঘন্টা খেটে তৈরি করেছিলাম এখন কিন্তু আমার ২৪ মিনিট ও দিতে হচ্ছে না কোন কোন দিন, এখন দুইটা গ্রুপ থেকে কম করে হলে ও রেগুলার আরনিং হচ্ছে এক হাজার এক হাজার দুই হাজার মানুষ এবং বাংলাদেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে। 

অনেক মানুষ এখানে একজন আর একজন কে হেল্প করছে নিজে থেকে ই কারন তারা ও শিখেছে এখান থেকে ই, তাই আমি অনেক হ্যাপি, আজকের এই দিনটাই আসলে দেখতে চেয়েছিলাম। কেমন কাজ করছে দেখতে হলে গ্রুপগুলাতে একটু ঘুরতে হবে।

টি স্প্রিং ফেসবুক গ্রুপ

বাংলাদেশ ভিডিও মার্কেটারস

 

 

টেক প্রো টিউনস – ফ্রিল্যান্সিং পেশার ক্ষেত্রে বাঁধাগুলো কি আপনার মনে হয় আর থাকলে সেটা কিভাবে সমাধান করা সম্ভব।

জাফর হোসাইন জাফি-  ফ্রিল্যান্সিং এর বড় বাঁধার মধ্যে একটা হচ্ছে শর্ট-কাট খোঁজা আর একটা হচ্ছে জাম্পিং, আমি সব সময় একটা কথা বলি যে “Jumpers are the best looser” অনেকেই জানে কথাটা আর আমরা কষ্ট করতে চাই না

আর সবার মত আমি একটা কথা বলি যে “কষ্ট যখন মিষ্টি লাগবে সফলতা তখন আসবেই আসবে”, আমি যখন ভুলে যাব যে আমার দুপরের খাবার আমি খাই নি, এখন বিকাল ৬টা বাজে তখন আমি বুঝতে পারবো যে আমি সফলতার দিকে যাচ্ছি, আসলে আমার খাওয়া ঘুমটা আমার কাছে মূল লক্ষ্য না, জীবনের লক্ষ্য আমার ঠিক হয়ে গেছে আর যেটা আমি করছি সেটাতে সফল হয়ে ই ছাড়বো কিন্তু জাম্প করবো না এদিক সেদিক। কিন্তু কেউ যদি খুব আরামে, শর্ট কাটে, কারোটা দেখে এমনি পেরে যাবে এরকম মনে করবে এবং ঘুমের মধ্যে টাকা কামাবে সেটা কখনই সম্ভব না।

 

 

টেক প্রো টিউনস –একটা মার্কেটপ্লেসে ভালো করার কিছুদিন পর ছেলে মেয়েদের একাউন্ট এ ধস নামে বলা যায়,  আপওয়ার্ক থেকে শুরু করে ইউটিউব পর্যন্ত এই ব্যাপারে কি বলবেন

জাফর হোসাইন জাফি-  কয়েকদিন কাজ করার পর ই ধস নামে সত্যি কথা, দেখুন ইউটিউব এ যদি ধস নামে ও সে কিন্তু আর একটা চ্যানেল আবার খুলতে পারছে, আবার সেই কন্টেন্ট গুলি ই আবার আপলোড করতে পারছে, আর মার্কেটপ্লেসে যেমন একটা প্রোফাইল থাকে ইউটিউব এ কিন্তু একাদিক চ্যানেল এ কাজ করা যায় একটা গেলে ও অন্যগুলি থাকে।

আমি কখনই আমার ছেলে মেয়েদের কে রিস্ক ফেক্টর এ ফেলি না। আর টি স্প্রিং এর কথা যদি বলেন তাহলে সেটার অথোরিটি আমি নিজেই, তাদের অফিসিয়াল সকল টুলের এক্সেস আছে আমার কাছে, অ্যাডমিন এর এক্সেস আছে, ড্যাশবোর্ড এর এক্সেস আছে, এনালাইটিক্স এর এক্সেস আছে তাই ওদিক থেকে আমি দেখতে পারি ব্যাপারগুলি, এতো বড় একটা কোম্পানির একটা দায়িত্বটা ও নেয়া হয়েছিলো আমাদের বাংলাদেশি ভাই বোনদের হেল্প করার জন্য আর তাদের সুবিধার্থে অনেক কাজ করে যাচ্ছি।

 

 

টেক প্রো টিউনস – ইউটিউব এর অ্যাডসেন্স, টি শার্ট ডিজাইন মার্কেটিং, ভিডিও মার্কেটিং, সোশ্যাল মিডিয়া  মার্কেটিং সব বিষয়ে ই কাজ করছেন, কোনটাকে বেশি সম্ভাবনাময় মনে হয়।

 জাফর হোসাইন জাফি- টি শার্ট মার্কেটিং, ভিডিও মার্কেটিং, অ্যাড সেন্স কোনটা কে বেশি সম্ভাবনাময় ভাববো এরকম প্রশ্ন আসলে আমি বলবো তাহলে আমি একটাতেই কাজ করতাম বাকিগুলাতে যেতাম না, আমি কখনো রিস্ক ফ্যাক্টর রাখি না, আর জানি ও না কোনটাতে হিট করবে আর কখনো যেন আমাকে ব্লক হয়ে যেতে না হয় যে একটা বন্ধ হয়ে গিয়েছে আর একটা থেকে টাকা আসতে থাকবে, একটা ইনকাম সোর্স এর উপর নির্ভর করা এই যুগে অনেক বড় একটা বোকামি তাই অবশ্যই খেয়াল রাখতে হবে এই বিষয়টায়।

 

 

টেক প্রো টিউনস –  আমাদের দেশের প্রেক্ষাপটে ডিজিটাল মার্কেটিং এর মাধ্যমে প্রোডাক্ট অথবা সার্ভিস বিক্রির ভবিষ্যৎ কেমন দেখছেন

জাফর হোসাইন জাফি-  ডিজিটাল মার্কেটিং এর মাধ্যমে প্রোডাক্ট বিক্রি কিন্তু শুরু হয়ে গিয়েছে, আমি যদি বলি ই কমার্স অথবা এফ কমার্সের কথা প্রোডাক্ট সেল হচ্ছে কিন্তু খুব একটা ভালো করছে না মার্কেট কেন?

কাস্টোমার সাপোর্টগুলা খুব ই খারাপ আর প্রোডাক্ট এর মান ও খারাপ, ওই দিক থেকে আমরা যদি একটু ছাপিয়ে উঠতে পারি তাহলে খুব ভালো হবে

আর সামনে আমার খুব ভালো প্ল্যান আছে, একদম আপামর জন সাধারন থেকে যারা স্মার্ট এবং এডুকেটেড আর এর মধ্যে অনেক বড় একটা অংশ হচ্ছে বেকার, ইয়াং জেনারেশনে ৭ কোটি মানুষ, দেশের জনসংখ্যার অর্ধেক আর এখানে বেকারের সংখ্যা অনেক , প্রায় ২-৩ কোটি, আমার এতো লাগবে না লক্ষ্য লক্ষ্য ইয়াং জেনারেশনের ছেলে মেয়েদেরকে যত প্রোডাক্ট সেল হচ্ছে ই কমার্স বিজনেস এ এদেরকে যদি একটা শেয়ার দিতে পারি, এফিলিয়েশন দিতে পারি তাহলে অবশ্যই অবশ্যই বড় একটা অংশ তারা ইনকাম ও করতে পারবে আবার প্রোডাক্ট সেলিংটা এর মধ্যে চলে আসবে।

 

 

টেক প্রো টিউনস –কিছু মানুষ বলে বাংলাদেশের মানুষ এখনো অনলাইন এ প্রোডাক্ট অথবা সার্ভিস কেনার জন্য তৈরি না, আপনি কি বলবেন।

 জাফর হোসাইন জাফি- আপনি ই বলে দিচ্ছেন কিছু মানুষ বলে, এখানে কিছু না অনেক মানুষের ই এই ব্যাপারে অজ্ঞ থাকাটাই স্বাভাবিক, অনলাইনে এখন অনেক বেচা কেনা হচ্ছে কিন্তু যাদের উপর বিশ্বাস করা যায় যেমন আজকে মার্কেটে আমার একটা পরিচিতি আছে আমি যদি টেকনোলোজি প্রোডাক্ট সেল করতে থাকি আমাকে বিশ্বাস করবে মানুষ

আজকে যদি গারমেন্টস এর নাম করা কেউ  কিছু প্রোডাক্ট প্রোমট করতেন তাহলে অবশ্যই অবশ্যই তার প্রোডাক্ট মানুষ কিনবে, তো এরকম যারা আছে যাদের মানুষ বিশ্বাস করে এবং আসলেই তাদের কোয়ালিটি আছে তখন কি হবে মানুষ এখান থেকে কিনবে। এবং অবশ্যই কাস্টোমার কেয়ার আর প্রোডাক্ট যারা বাজে দিবে তাদের জন্য শাস্তির ব্যাবস্থা করতে হবে।

 

 

টেক প্রো টিউনস –আপনার উদ্দেশ্য কি, ডিজিটাল মার্কেটিং এ বাংলাদেশকে ২০২১ সালের মধ্যে কোথায় দেখতে চান।

 জাফর হোসাইন জাফি- দেখুন আমি এখনো কাজ করে যাচ্ছি, ২০২১ সালে বাংলাদেশ কে ডিজিটাল মার্কেটিং এ যেখানে দেখতে চাই সেটা হচ্ছে, ইয়াং যারা আছে তারা HSC দেয়ার পর মার্কেটিং এ আসবে, ডিজিটাল মার্কেটিং এর একটা ফ্যাকাল্টি থাকবে এবং বর্তমানে বই পুস্তকে যে মার্কেটিং এর ব্যাপার আছে যেখানে গদ বাঁধা অনেক কিছু মুখস্ত করতে হচ্ছে এই বিষয়গুলি যেন সরে যায়, একদম উঠে যাবে এরকম না, সেই থিউরি গুলা থাকবে এবং ডিজিটাল মার্কেটিং এর মাধ্যমে সেগুলি অ্যাপ্লাই করতে হবে।

আমার চেস্টা চলছে, একটা প্রাইভেট ইউনিভার্সিটির সাথে ট্রাই করেছিলাম আসলে কিন্তু হয়ে উঠে নি আমার সময় স্বল্পতার কারনে, যদি আপনার ব্লগ অথবা অন্য কারো মাধ্যমে করা সম্ভব হয় যে ডিজিটাল মার্কেটিং এর ডিপার্টমেন্ট থাকবে এবং এখান থেকে অনেক অনেক ডিজিটাল মারকেটার তৈরি করা যাবে যারা আমাদের প্রয়োজন মেটাবে এবং দেশের বাইরে ও কাজ করতে পারবে।

 

টেক প্রো টিউনস – Zafi Digital.com এবং Warrior Niche সম্পর্কে জানতে চাই

জাফর হোসাইন জাফি- যাফি ডিজিটাল আর Warrior Niche এটা ভিন্ন কোন প্ল্যাটফর্ম না, আমাদের অনেকগুলা প্রোডাক্ট এর মধ্যে Warrior Niche একটা প্রোডাক্ট।

যাফি ডিজিটাল অনেক ভালো করছে, বাংলাদেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে এসে মানুষ কন্সাল্টেন্সি নিচ্ছে যে কিভাবে ক্যারিয়ার ডেভোলপ করা যায় এবং অনেকেই ক্যারিয়ার ডেভোলপ করেছে এবং আমাদের নিজেদের ক্লাইন্ট যারা আছে বাইরের দেশে তাদের কাজ করে যাওয়া এবং নিজেদের অনেকগুলা প্রোডাক্ট যেটার মধ্যে Warrior Niche আছে আরো অনেক কিছু আছে।

আমার খুব খারাপ লাগতো যখন দেখতাম ক্লিক ব্যাংক আমাদের একাউন্ট করতে দিচ্ছে না অথবা অন্যান্য জায়গা থেকে ব্যান করছে অনেককে, এখন আমাদের নিজেদের একটা কমিউনিটি হয়েছে এফিলিয়েট এর উপর, এখানে আমরা ক্লিক ব্যাংক এর প্রোডাক্টগুলা ই নিয়ে আসবো আর ক্লিক ব্যাংক কে আফসস করাবো যে দেখো এরা চাইলে তোমাদের সাথে প্রোফিট শেয়ার করতে পারতো, তোমার বড় একটা মার্কেট এখানে তোমরা হারিয়েছ এবং এক ই প্ল্যাটফর্ম এ বাংলাদেশি প্রোডাক্ট এবং বিদেশি প্রোডাক্ট এখান থেকে সেল হবে।

এখানে ই দেখতে চাই আমি জাফি ডিজিটাল,Warrior Niche এবং আমাদের ইয়াং জেনারেশন কে।

 

এখন আর কোন বাঁধা নেই- রাজিব আহমেদ। একান্ত সাক্ষাৎকার

আমার নাম আরিফুল। গ্রাফিক ডিজাইন, ডিজিটাল মার্কেটিং, ব্র্যান্ডিং ইত্যাদি বিষয় নিয়ে কাজ করি। লিখতে অনেক ভালোবাসি। মুলত আইটি বিষয়ক বিভিন্ন লেখা লিখি থাকি।আমি এই ব্লগের এডমিন। আশা করি আপনাদের ভালো কিছু আর্টিকেল দিতে পারবো যা পড়ে আপনারা উপকৃত হবেন। এটার সাথে আমি ই ক্যাব এবং জেনেসিস ব্লগে ও লিখে থাকি।

1 Comment

  1. Onak valo laglo..zafi vai my best person..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *