ব্র্যান্ড

জেনে নিন Brand ,Identity এবং Logo ডিজাইন এর পার্থক্য

জেনে নিন Brand ,Identity এবং Logo ডিজাইন এর পার্থক্য

আমরা যারা গ্রাফিক ডিজাইন করি, বিশেষ করে জারা লোগো ডিজাইন করে তারা সবাই কি জানি, ব্র্যান্ড ডিজাইন, Identity ডিজাইন এবং Logo ডিজাইন এর মধ্যে পার্থক্য কি? নাকি আমরা মনে করি ৩টাই এক ই জিনিশ?

লোগো অবশ্যই ব্র্যান্ড না আর লোগো দিয়ে আপনার পরিচয় ও বুঝা যাবে না। লোগো ডিজাইন, ব্র্যান্ড ডিজাইন এবং Identity ডিজাইন এগুলি একদম ই আলাদা বিষয়। আসুন জেনে নেই।

ব্র্যান্ড ডিজাইন কি?

ব্র্যান্ড ডিজাইন কোন ভাবে ই হাল্কা কোন বিষয় না। এর উপর কয়েকটা মোটা মোটা বই লিখে ফেলা সম্ভব। অনেকেই মনে করে কিছু উপাদান হলে ই ব্র্যান্ড হয়ে যাবে যেমন, কালার, টেক্সট বিভিন্ন ধরনের ফন্ট, লোগো, স্লোগান ইত্যাদি কিন্তু বাস্তবে ব্র্যান্ড এর ব্যাপারটা এতোটা সহজ না। মোটা দাগে ব্র্যান্ড হল একটা কোম্পানি যা করে, একটা কোম্পানি যা ধারন করে, এবং একটা কোম্পানি যা উৎপাদন করে তার সব কিছুর প্রতিফলন হতে হবে তাদের কাজে এবং তাদের লক্ষে। তারা কি? তারা কি করতে চায়, তারা কিভাবে করতে চায়, এই বাপারগুলি যখন দর্শক এর কাছে যাবে, দর্শক গ্রহন করবে এবং এভাবে ই একটা ব্র্যান্ড গড়ে উঠবে। এখানে বলতে হয় একজন ডিজাইনার কখনই একটা ব্র্যান্ড বানাতে পারে না, ব্র্যান্ড বানায় দর্শক, ডিজাইনার শুধু সেই ব্র্যান্ড এর ভিত্তিটা করে দিতে পারে।

 

 

ব্র্যান্ড যে ভাবে গড়ে উঠে

– পজিশনিং
– যোগাযোগ এবং একটা মেসেজ দেয়া
– টার্গেট মার্কেট
– ভিজুয়াল ডিজাইন
– মার্কেটিং এবং প্রোমোশন

উদাহারন দিচ্ছি

আমাদের দেশের দুইটা বড় বড় মোবাইল কোম্পানি। গ্রামিন ফোন এবং রবি। এরা কিভাবে ব্র্যান্ড হিসেবে গড়ে উঠল? তাদের টার্গেট ছিল আমাদের দেশের জনগন। তাই প্রথমেই বুঝতে হবে ব্রান্ডিং এ একটা টার্গেট থাকে। এখন কথা হল আমাদেরকে কিভাবে আকৃষ্ট করা যায়। সেটা বের করা, গ্রামিন ফোন, রবি আমাদের দেশ, সংস্কৃতি, মানুষ এর জন্য মানুষ এর ভালবাসা এগুলি তুলে ধরেছে। আর আমরা আবেগ প্রবণ জাতি তাই এগুলি আমাদের আকর্ষণ করে, এই ভাবে ই একটা কোম্পানি তার নির্দিষ্ট একটা জনগোষ্ঠী কাছে ব্র্যান্ড গড়ে তুলে।আর শুধু এগুলি দিয়ে তো আর হয় না। মান সম্মত সার্ভিস ও জরুরি। এখানে জনগনের দৃষ্টিভঙ্গিটাই সব থেকে গুরুত্তপুরন। আমরা যখন কোন মোবাইল কিনতে গেলে ই বলি উমুক কোম্পানির মোবাইল কিনব, ঘড়ি কিনতে গেলে উমুক কোম্পানির ঘড়ি ভাল তখন বুঝা যায় যে সেই কোম্পানি তার ব্র্যান্ড সফল ভাবে বানাতে পেরেছে। আর সেগুলি কিন্তু একদিন এ হয় নাই। তারা তাদের যোগ্যতা দিয়ে ই এতদূর আসতে পেরেছে।

 

আইডেন্টিটি ডিজাইন কি

আপনি ব্র্যান্ড তৈরি করলেন, প্ল্যান করলেন আপনি কোন গ্রুপ এর মানুষ এর কাছে আপনার ব্র্যান্ড তুলে ধরবেন, তাহলে তো আপনাকে প্রচার করতে হবে, আপনাকে আপনার কোম্পানি অথবা প্রোডাক্টকে মার্কেট এ, জনগনের মধ্যে পরিচয় করিয়ে দিতে হবে, এর নাম ই হচ্ছে আইডেন্টিটি। তাহলে সেটা কি রকম হতে পারে?

 

আপনার কোম্পানির ডিজাইন ভিজুয়াল মাধ্যমে তুলে ধরা।

১. লোগো( যেখানে একটা সিম্বল এর মাধ্যমে আপনার ব্র্যান্ডকে ফুটিয়ে তোলা হবে)
২. স্টেশনারি( লেটারহেড, বিজনেস কার্ড, ইনভলাপ ইত্যাদি)
৩. মার্কেটিং এর বিষয় ( লিফটলেট, ব্রশিউর,বই, ওয়েবসাইট ইত্যাদি)
৪।আপারেল প্রোডাক্ট ( কোম্পানির নাম লোগো সম্বলিত টি শার্ট, ক্যাপ যা কোম্পানির কর্মকর্তা, কর্মচারী পরে থাকে)
৫. বিভিন্ন ধরনের সাইন বোর্ড, বিভিন্ন ধরেন মেসেজ, এবং যে কোন ধরনের ভিসুয়াল মিডিয়া যা সেই কোম্পানির সাথে যায়।

লোগো ডিজাইন কি

লোগো ডিজাইন কি এইটা জানার আগে আমাদের জানতে হবে লোগো ডিজাইন কিসের জন্য। এক লাইন এর উত্তর
লোগো ডিজাইন শুধুমাত্র পরিচয় এর মাধ্যম অথবা চেনার মাধ্যম।
একটা লোগো দ্বারা একটা কোম্পানিকে চেনা যায় যেখানে বিভিন্ন ধরনের মার্ক,সিম্বল, টেক্সট, শেপ থেকে থাকে। লোগো কখন একটা কোম্পানিকে বিস্তারিত ভাবে তুলে ধরবে না। লোগো সুধু মাত্র সেই কোম্পানির মিনিং একটা সিম্বল এর মাধ্যমে তুলে ধরবে। আর একটা কথা বলা যায় সেটা হল একটা লোগোর মধ্যে কি অর্থ আছে সেটা পরে আসবে আগে আসবে লোগোটা দেখতে কেমন হল।

 

 ব্র্যান্ড ডিজাইন আর লোগো ডিজাইন এর পার্থক্য

লোগো সুধু মাত্র একটি গ্রাফিক উপাদান যা ব্র্যান্ড এর মার্কেটিং, প্রোমোশন এর ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয়।যেমন RFL কোম্পানি। এইটা একটা ব্র্যান্ড। কিন্তু RFL এর কিন্তু লোগো একটা না। RFL এর বিভিন্ন শাখা আছে, বিভিন্ন ধরনের প্রোডাক্ট মার্কেট এ আছে। এবং দেখা যায় তাদের শাখাগুলোর প্রায় সবগুলি ই আলাদা লোগো আছে। যেমন Vison RFL এর একটা অংশ কিন্তু vison এর আলাদা লোগো আছে। তাই আমরা বুঝতে পারছি যে লোগোটা সুধু কোন কোম্পানি সম্পর্কে অথবা কোন প্রোডাক্ট সম্পর্কে মানুষকে পরিচয় করিয়ে দেয়ার একটা ভিসুয়াল মাধ্যম।

 

আরিফুল ইসলাম

প্রশিক্ষক, গ্রাফিক ডিজাইন

আমার নাম আরিফুল। গ্রাফিক ডিজাইন, ডিজিটাল মার্কেটিং, ব্র্যান্ডিং ইত্যাদি বিষয় নিয়ে কাজ করি। লিখতে অনেক ভালোবাসি। মুলত আইটি বিষয়ক বিভিন্ন লেখা লিখি থাকি।আমি এই ব্লগের এডমিন। আশা করি আপনাদের ভালো কিছু আর্টিকেল দিতে পারবো যা পড়ে আপনারা উপকৃত হবেন। এটার সাথে আমি ই ক্যাব এবং জেনেসিস ব্লগে ও লিখে থাকি।

1 Comment

  1. ভাল, তবে আরও বেশি আসা করেছিলাম।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *